Tag Archives: চটি

ছোটবেলার ঘটনা


ছোটবেলার ঘটনা। মফস্বলে মামার বিয়েতে বেড়াতে গিয়েছি। সেভেনে পড়ি। ছোটশহরে নানার একতালা বাড়ি, আশেপাশে নানার ভাই বোনেরা থাকেন। সবার বাসাইআত্মীয় স্বজনে ভরা বিয়ে উপলক্ষে। নানার বাসায় ১৮/১৯ বছরের একটা মেয়েকাজ করে। মেয়েদের দিকে আগ্রহ ছিলো কিন্তু ঐ বয়সে কাজের মেয়েদের দিকেকোন রকম কৌতুহল ছিল না। এত মানুষের মধ্যে আমি ওর অস্তিত্ব খেয়ালও করিনাই। ঢাকা থেকে প্রথমদিন গিয়েই আমার শরীর খারাপ হয়ে গেল।


Continue reading ছোটবেলার ঘটনা

আমার অবাক হওয়ার পালা


এই ঘটনাটা ১৯৯০ সালের। ডিগ্রী পাশ করার পর কিছু পারিবারিক আর রাজনৈতিক কারনে আমার আর পড়াশুনা এগোল না। চাকরী খুঁজতে গিয়ে হিমশিম। শেষে কয়েকজনের পরামর্শে হাতে কলমে কারিগরী প্রশিক্ষণ নেয়ার জন্যে ঢাকায় একটা ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে ভর্তি হলাম। উদ্দেশ্য একটাই, দেশে চাকরী না পেলে বিদেশ চলে যাবো। আমার এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু কবির আগে থেকেই ঢাকায় থাকতো। তখনো ও বিয়েশাদী করে নি, মেসে থাকতো। আমি ওর সাথে যোগাযোগ করলে ও আমাকে উষ্ণ আমন্ত্রণ জানালো। আসলে ও যে মেসে থাকতো সেটা একটা গণ মেস। প্রায় ১৫/২০ জন একটা মেসে থাকে, ২টা টয়লেট আর ২টা চুলায় ২জন মাতারী রান্না করে। সকালে উঠেই টয়লেটে লাইন দিতে হয় আর তারপরেই নাস্তার জন্য লাইন দিতে হয়, সবারই তাড়াতাড়ি বের হওয়ার তাড়া। আমাকে পেয়ে ও যেন আকাশের চাঁদ হাতের নাগালে পেয়ে গেল। Continue reading আমার অবাক হওয়ার পালা

মেজবৌ


সরকার গিন্নি কারোর সাথে মেশেন না , আর তিনি কারোর বাড়ি যাওয়াও পছন্দ করেন না ৷ গিরিজা পাড়ার খবরিলাল সেই মাঝে মাঝে আসে সরকারদের বাড়িতে ৷ আর সরকার গিন্নির ভয়ে তঠস্থ থাকে এলাকা সব সময় ৷ ঝগড়ায় কেউ পেরে উঠবে না বলেই যে যার মত নিজেকে গুটিয়ে রাখে ৷ বাবা মার অমতে কিশোর বিয়ে করে এনেছে স্নিগ্ধা কে ৷ গরিব ঘরের মেয়ে সে ৷ সরকার মশাই খুসি হলেও সরকার গিন্নি কিশোরের উপর তেলে বেগুনে জ্বলে আছে ৷ কিশোর মেজ ছেলে শহরে কারখানায় কাজ করে প্রতিমাসে ৩ দিনের জন্য বাড়িতে আসে ৷ মা কে টাকা দিয়েই তাকে এই বাড়িতে থাকতে হবে ৷ সে কথা পাকা করে নিয়েছেন পূর্নিমা দেবী ৷
Continue reading মেজবৌ

হারিকেনের আলোয়


আমি ক্লাশ টু পর্যন্ত গ্রামের বাড়িতে থেকে লেখাপড়া করেছি। আমাদের বাড়ির সবাই শিক্ষিত। আমার একটাই মাত্র ফুফু ছিল যিনি আমায় অত্যাধিক স্নেহ করতেন। নিজের সন্তানের চাইতেও বেশী, আমার অন্তত তাই মনে হতো। আমার ছোট বেলায় যখন তিনি মারা যান, তখন তার ৪ ছেলে ও ১ মেয়ে। আমার ফুপাত বোন ছিল আমার ১ বছরের ছোট, নাম আরিফা। সে আমাদের বাড়িতে থেকে পড়াশোনা করত। আমাদের মধ্যে ভালই সখ্যতা ছিল। ক্লাশ থ্রি-তে উঠার পর ভাল পড়াশোনার জন্য আমাকে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়া হয়। আমি হোষ্টেলে থেকে পড়ালেখা করতাম এবং মাঝে মাঝে বাড়ি আসতাম।
Continue reading হারিকেনের আলোয়

দুষ্টুমি কাকে বলে! (collected)


‘আম্মুউউউ……’ সুহান এক দৌড়ে রান্নাঘরে ঢুকে তার মাকে জড়িয়ে ধরে।

‘এই ছাড়, ছাড়’ সুহানের মা ছেলের হাত থেকে ছাড়া পাবার ব্যার্থ চেষ্টা করে বলেন।

‘হি হি ছাড়বো না! জানো মা আমি না একটুর জন্য সেকেন্ড হতে পারলাম না, ঐ রহিমটা না কিচ্ছু পারে না, আমাকে ফার্স্ট বানিয়েই ছাড়লো হতচ্ছাড়া।’ এক নিশ্বাসে কথাগুলো বলে শেষ করে সুহান।

‘ইশ! এত বড় হয়েছিস, তাও তোর ছেলেমানুষি গেল না। ফার্স্ট হয়েছিস এটাতো আরো ভালো, বোকা ছেলে’ তরকারীটায় ঢাকনা দিয়ে বুয়াকে দেখতে বলে সুহানের মা ছেলের দিকে স্মিত হেসে তাকান।

Continue reading দুষ্টুমি কাকে বলে! (collected)

ছাত্রীর মা (download pdf)


——–সব কিছু ঠিকঠাক হয়ে গেল, আমি সপ্তায় চারদিন পড়াব। ফ্রাইডে অফ——–

পুরো গল্প পড়ার জন্য নিচের লিঙ্ক এ গিয়ে ডাউনলোড করুন

Click here to download

Continue reading ছাত্রীর মা (download pdf)

রিভেঞ্জ (download pdf)


——-নীতুর লগে যা করি, কাপড়ের উপর দিয়াই করি। বেশি বিরক্ত করিনা।——–

পুরো গল্প পড়ার জন্য নিচের লিঙ্ক এ গিয়ে ডাউনলোড করুন

Click here to download

Continue reading রিভেঞ্জ (download pdf)

সুরভিত উদ্যান (download pdf)


———ও আমাকে দিপঙ্করের সাথে আলাপ করিয়েছিল একদিন। বলেছিল সত্যিকারে বন্ধু সবাই হয়না———

পুরো গল্প পড়ার জন্য নিচের লিঙ্ক এ গিয়ে ডাউনলোড করুন

Click here to download

Continue reading সুরভিত উদ্যান (download pdf)

অনিন্দিতা (download pdf)


———পাপাইয়ের সাথে আমার সম্বন্ধ করে বিয়ে হয়। থন আমি ফাইনাল ইয়ারের ছাত্রী——–

পুরো গল্প  পড়ার জন্য নিচের লিঙ্ক এ গিয়ে ডাউনলোড করুন

Click here to download

Continue reading অনিন্দিতা (download pdf)