বড়দের কৌতুক সংগ্রহ ০৬


১।
বিচারক : আপনি বলেছেন- আপনার বন্ধুর সঙ্গে অবৈধ প্রণয় চলছিল বলে বউকে খুন করেছেন। কিন্তু আপনি আপনার বন্ধুকে খুন না করে বউকে খুন করলেন কেন?
আসামি : হুজুর আমার অনেক বন্ধু। সপ্তায় একজন করে বন্ধুকে মারার চেয়ে বউকে মারাই সহজ মনে হল তাই

২।
ডান্স পার্টি হচ্ছে। এক স্মার্ট যুবক তার চেয়েও লম্বা সুন্দরী এক তরুনীকে তার সাথে নাচার আমন্ত্রন জানাল।
: ধন্যবাদ। কোনো বাচ্চাকে নিয়ে আমি নাচি না।
: সরি! মিস, আপনার যে বাচ্চা হবে তা আমি জানতাম না

৩।
সেলসম্যান একটা শাড়ি দেখিয়ে মহিলাকে বললেন, আপা, এটা নিয়ে যান। এটা আপনাকে খুব সুন্দর মানাবে। পরলে মনে হবে আপনার বয়স কমে গেছে। মহিলা শাড়িটা ফেরত দিয়ে বললেন, না ভাই, যে শাড়ি খুলে ফেললে বয়স দশ বছর বেড়ে যায়, সে শাড়ি আমার দরকার নেই।

৪।
: (ঘুম জড়িত কন্ঠে) হ্যালো…
: কিরে, কতবার ফোন করলাম ফোন ধরছিস না কেন?
: ও না কাল রাতে খুব ডিস্টার্ব করছিল। আমি খুব রেগে ওকে বলে দিলাম- তোমার মুখদর্শন করতে চাই না…
: ও তখন কী করল ?
: কী আর করবে, আস্তে আস্তে উঠে ঘরের লাইটের সুইচটা অফ করে দিয়ে এল…

৫।
রবিবার গির্জায় ধর্মোপদেশের মাঝখানে এক লোক হঠাৎ লাফ দিয়ে উঠে দ্রুত বাইরে চলে গেল। লোকটার এই আচরণে অন্যরা অবাক হল । পর দিন পাদ্রী যখন এর কারণ জানতে চাইলেন তখন সে বলল, এক সপ্তা আগে আমার ছাতাটা হারিয়ে ফেলেছিলাম । আপনি কাল যখন বলেন, ‘তোমরা ব্যভিচার করিও না ’ তখন আমার মনে পড়ল ওটা আমি কেথায় ফেলে এসেছি ।

কিছু লিখুন অন্তত শেয়ার হলেও করুন!

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s